কে যে কখন ধরা পড়ে তার ঠিক নেই: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ক্যাসিনো ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে জড়িত এটা ঠিক না। এটা বোর্ডের বিষয় না। ক্যাসিনোতে যিনি ছিলেন, তিনি ধরা পড়েছেন। কাজেই কখন যে কে কিসে ধরা পড়ে তার ঠিক নেই।’

কারাগারে থাকা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে ইঙ্গিত করে করা এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে সদ্য সমাপ্ত ১৮তম জোট নিরপেক্ষ সম্মেলন (ন্যাম) নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে গণভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকরা এত খবর রাখেন অথচ ক্যাসিনো জানেন না কেনো। এতদিন ধরে কোনো একটা গণমাধ্যম এমন নিউজ দিতে পারলো না। সাংবাদিকদের কেউ একটা নিউজ করেনি ক্যাসিনো নিয়ে। কেউ করেনি। আমি এটা ধরেছি। এর জবাব কি সাংবাদিকরা জাতির কাছে দিতে পারবেন? এমন একটা ঘটনা ঘটে যাচ্ছে কেউ কিছু বললেন না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘মানুষ যখন অপরাধের সঙ্গে জড়ায় হয়তো প্রথম কেউ জানে না। কিন্তু একপর্যায়ে থাকে ধরা পড়তেই হবে। কখন কে কোন অপরাধে ধরা পড়ে তার কোনো ঠিক নেই। আমরা চাচ্ছি দেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক। আর সেটাই করে যাচ্ছি।’

ক্রিকেট খেলোয়াড়দের ধর্মঘটের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্লেয়াররা হঠাৎ ধর্মঘট ডাকলো। তারা তাদের দাবি বিসিবিকে জানাতে পারতো। সেটা তারা করেনি। যাই হোক, পরবর্তীতে বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সেটা এখন মিটমাট হয়ে গেছে। আমরা যেভাবে খেলোয়াড়দের সাপোর্ট দেই। এটা হয়তো অন্য কোনো দেশ করে না।’

সাকিব আল হাসানের বিরুদ্ধে ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব গোপন করার অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিসিবি সব সময় সাকিবের সঙ্গে আছে। সব ধরনের সহযোগিতা তাকে দেওয়া হবে। তবে ওর উচিত ছিল ফিক্সিংয়ের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা। কিন্তু সে তা করেনি। গোপন না করে সেটা আইসিসিকে তার জানানো উচিৎ ছিল। সে এটা ভুল করেছে। আইসিসি যদি অবস্থান নেয়, সে ক্ষেত্রে আমাদের তো খুব বেশি কিছু করার থাকে না। তারপরেও আমাদের যা করার সেটা করা হবে।’

Total Page Visits: 243 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Shares