উদ্ধার হওয়া খণ্ডিত মরদেহের পরিচয় মিলেছে

ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া খন্ডিত দেহ ও কুড়িগ্রামে পাওয়া হাত-পা-মাথা একই ব্যক্তির। নিহত ব্যক্তি নেত্রকোণার পুর্বধলার মোহাম্মদ বকুল।

এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকায় গাজীপুর ও কুড়িগ্রাম থেকে দুই নারীসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, নিহতের প্রতিবেশী সাবিনা, তার দুই ভাই ফারুক, হৃদয় ও ভাবি মৌসুমী। চারজনই আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন জানান, দীর্ঘদিন থেকেই সাবিনাকে উত্ত্যক্ত করতো বকুল। সাবিনার বিয়ে হওয়ার পরও বকুল নানাভাবে হয়রানি করতে থাকে। এরপর কৌশলে বকুলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে সাবিনা।

গত ১৯শে অক্টোবর বকুলকে জয়দেবপুরে ভাইয়ের বাসায় ডেকে নেয় সাবিনা। তাকে হত্যার পর মরদেহ টুকরো করে ময়মনসিংহ ও কুড়িগ্রামে ফেলে দেয়া হয়। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

Total Page Visits: 253 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares