জন্মের আগেই কী কী কাজকর্ম শিখে ফেলে আপনার শিশু?

জীবনের যাবতীয় আবেগ, ইচ্ছা-অনিচ্ছা— সব পার্থিব ব্যাপার হিসাবেই ধরে নিই আমরা। কিন্তু জানেন কি, এমন অনেক বিষয় আছে যা মাতৃগর্ভে থাকাকালীনই অনুভব করতে পারে শিশু। চিকিৎসকরা বলছেন, মস্তিষ্কের গঠন উন্নত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে, কিছু কিছু ইচ্ছাধীন কাজও আপনার শিশু করে ফেলে জন্মের আগেই। দেখে নিন সে সব কী কী।

আবেগ:
ঠিক কেমন আছে তার মা? রাগে, মজায়, না কি ভয়ানক দুঃখে? সবটাই বুঝতে পারে শিশু। গর্ভধারণের ৮ মাস পরই গর্ভস্থ শিশুর মুখে ফুটে উঠতে থাকে নানা আবেগের ভঙ্গি। মূলত, মায়ের ভাল থাকা-খারাপ থাকার উপর তা অনেকটাই নির্ভর করে। মা খুশি হলে শিশুও খুশ! ৩৩ সপ্তাহ কাটলে তার হাসি মুখের ছবিও ধরা পড়ে আলট্রাসাউন্ডে।

মানসিক চাপ:
মাতৃত্বকালীন ছুটিতে যাওয়ার আগে অফিসে কাজের চাপ বেড়েছে কিংবা বাড়িতে কোনও কারণে মানসিক চাপে আছেন? আপনার শিশু কিন্তু ঠিক টের পেয়ে যায়। গর্ভবতী মাকে চিকিৎসকরা পরামর্শ দেন চাপমুক্ত থাকতে। এতে তার শরীর তো ভাল থাকেই, সঙ্গে ভাল থাকে শিশুও। আপনি সমস্যায় থাকলে তারও মন খারাপ হয়। অস্তিরতা থাকে তার ছটফটানিতে।

কান্না:
কী ভাবেন, চিলচিৎকার জুড়ে কাঁদতে শিখেছে সে জন্মের পর? মোটেই না। বরং গর্ভে থাকাকালীন কোনও কারণে রেগে গেলে বা কষ্ট পেলে কেঁদে ওঠে সে। তবে তখনও শব্দ করতে পারে না বলে, সে কান্নার প্রকাশ হয় নিঃশব্দে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, তিন মাস পর থেকেই আলট্রাসাউন্ডের মাইক্রোফোনে অনেক সময়ই তার কান্নার মৃদু তরঙ্গ ধরা পড়ে।

স্মৃতিশক্তি:
গর্ভস্থ অবস্থায় সুর করে বা জোরে কোনও ছড়া-গল্প বললে কিংবা গান গাইলে তা শুনতে তো পায়ই শিশু, শুধু তা-ই নয়, তার মস্তিষ্কের কাজও চলে পুরোদমে। হ্যাঁ, গর্ভে থাকাকালীনই সে মনে রাখতে শিখে যায় বারবার শোনা কোনও গান বা ছড়ার লাইন।

হাত-মুখের যোগ:
আট মাস গর্ভধারণের পরের আলট্রাসাউন্ডে প্রায়ই ধরা পড়ে শিশু মুখের মধ্যে আঙুল পুরে নিশ্চিন্তে রয়েছে। আঙুল চোষার এই পাঠ সে শিখে ফেলে গর্ভে থাকাকালীনই। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, হাতের আঙুল নিয়ে যে কী করবে তা সে মজে মাঝেই বুঝে উঠতে পারে না, তাই সটান চালান করে দেয় মুখে!

Total Page Visits: 565 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Shares