তালা উপজেলায় সরিষা চাষ,বম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষকরা

জহর হাসান সাগর তালা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার তালা উপজেলায় বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে চাষ করা হচ্ছে সরিষা। যেদিকে দু’চোখ যায় মাঠে শুধু সরিষা ফুলের সমারাহ। সরিষার ক্ষেত হলুদ ফুলের গন্ধে যেন দিক দিগন্ত রাঙ্গিয়ে তুলেছে। মাঠের পর মাঠ হলুদ হাসিতে ভরে তুলেছে প্রকৃতির চিত্র।

হলুদ সরিষা ফুলের শোভিত প্রকৃতিতে কৃষকের প্রাণ জুড়িয়ে যাচ্ছে। সরিষা ফুলের মন মাতানো গন্ধ সবাইকে আকৃষ্ট করে। কিছুদিনের মধ্যে উঠে আসবে চাষিদের প্রতিক্ষিত ফসল সরিষা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ বছর সরিষার বাম্পার ফলন হবে এমনটাই আশা করেছেন সরিষা চাষীরা। উপজেলায় এ বছর ৪৬৫ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে বলে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা গেছে।

উপজেলার তেতুলিয়া গ্রামের সরিষা ক্ষেতের মালিক কাজী আলিমুর রহমান অভি জানান, ভালো ফসল হবে এমনটাই আশা করছি। তবে কৃষকদের সরিষা চাষ আগ্রহ সৃষ্টির জন্য উপজেলা কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের সার্বক্ষনিক আমাদের পরামর্শ দিচ্ছেন বলে জানান তিনি। তার মতে, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যদি কৃষকদের ঠিক মতো এভাবে দেখাশোনা করে তাহলে অনেক অনাবাদি জমিতে আরও বেশি সবজিসহ সরিষা চাষ করা সম্ভব।

এদিকে প্রায় প্রতিদিন সকালে তালা উপশহরের বাজারে সরিষার গাছ সবজি হিসাবে বিক্রয় করতে দেখা যায় ।এতে কৃষকরাও মোটামুটি লাভবান হচ্ছে । তবে সরিষা হওয়ার আগে সরিষা গাছ বাজারে বিক্রয় করাকে ভালো চোখে দেখছেন না সচেতন মহল ।

কৃষক হৃদ্বয় বলেন, সরিষা চাষ খুব একটা ব্যয়ও করতে হয় না। সরিষার জমিতে খুব বেশি চাষ দিতে হয় না। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতা এবং সরিষার ন্যায্যমূল্য পেলে এ অঞ্চলের কৃষকরা ধান চাষের পাশাপাশি সরিষা চাষে আরও বেশি এগিয়ে আসবে চাষীরা ।

উপজেলার মাগুরার শাহিনুর জানান, জমিতে চাষ দিয়ে বীজ বপনের উপযুক্ত হলে একবিঘা জমিতে ১৪ কেজি ইউরিয়া সার, ৮.৫ কেজি পটাশ, টিএসপি ১৮ কেজি, জিপসাম ১২.৫ কেজি, ম্যাগনেসিয়াম সালফেট ২ কেজি, জিংক সালফেট ৩.৭৫ কেজি, বরিক এসিড ৭.৭৩ কেজি ও প্রয়োজন মতো গোবর সার মিশিয়ে জমিতে ছড়িয়ে দিয়ে সরিষার বীজ বপন করেন। পরে আরেকবার প্রয়োজনমতো সার ওষুধ ও সেচ দিয়েছেন। এতে তিনি ভালো ফলনের আশা করছেন।

তালা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, চলতি মৌসুমে উপজেলায় সরিষার চাষ হয়েছে ৪৬৫ হেক্টর জমিতে। এ বছর ভালো ফলনের জন্য টরি-৭, বারি-১৪ ও ১৫ জাতের সরিষা চাষ করেছেন শতকরা ৯৯ ভাগ কৃষক।বাকি একভাগ চাষ হয়েছে দেশি সরিষাসহ অন্যান্য জাতের। সরিষা চাষ করতে প্রধানত চারটি জিনিস প্রয়োজন হয়। এরমধ্যে রয়েছে ভালো বীজ, সার, সেচ ও যন্ত্র।

আমরা কৃষক ভাইদের পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতা দেওয়ার চেষ্টা করছি ।আবহাওয়া অনুকুলে থাকে উপজেলায় সরিষার বাম্পার ফল হবে বলে আশা করছি ।

Total Page Visits: 439 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares