জাতীয়জীবনশৈলীদেশব্যাপীবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিশিরোনামসব খবরসর্বশেষ

চড়াই উতরাই সকালের পারদে, বাতাসে ভরপুর বসন্ত

ঋতু পরিবর্তন স্পষ্ট শহরের আবহাওয়ার হালচালে। তাপমাত্রা কখনও বাড়ছে, কখনও কমছে। এর মধ্যে দিয়েই স্বাভাবিক নিয়মে হচ্ছে ঋতু পরিবর্তন। নিয়ম মেনে দোল পর্যন্ত ভোরবেলা ও সন্ধ্যার দিকে গা শিরশিরে ভাব থেকেই যাবে। এমনই মত আবহাওয়াবিদদের।

রাতের দিকে শহরের মানুষকে এখনও গায়ে বালাপোশ, হালকা চাদর গায়ে দিতেই হচ্ছে। একটু ফাঁকা জায়গা হলে রাতের বেলায় রীতিমত লেপ মুড়ি দিয়েই ঘুমোতে হচ্ছে মানুষকে। আর পাখা? না বেলার দিকেও এর প্রয়োজন পড়ছে না। কারণ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যেমন স্বাভাবিকের নীচে থাকছে তেমনই নীচে রয়েছে সর্বোচ্চ তাপমাত্রাও।

সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। এ ধারা অব্যাহত থাকতে পারে। আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, আগামী ৩ দিনের মধ্যে রাত ও দিনের তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

বৃহস্পতিবার সকালে আবহাওয়া অফিস বলছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। আবহাওয়া অফিসের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে সীতাকুণ্ডে ৯ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে টেকনাফে ২৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *