ইমিউনিটি বাড়াতে নিয়মিত শরীরচর্চা… কিন্তু ঠিক কতটা!

সারা বিশ্বে প্যানডেমিকের আকার নিয়েছে করোনাভাইরাস।একের পর এক দেশে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যু সংখ্যা। তারই মধ্যে চলছে মানুষকে সচেতন করার প্রচেষ্টা।অনুরোধ করা হচ্ছে সোশ্যাল ডিসটেন্সিং মেনে চলতে।

করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার থেকে আটকাতে বিশ্বের সব প্রশাসনই বার বার আর্জি জানাচ্ছে সাধারণ মানুষকে সোশ্যাল ডিসটেনসিং বজায় রাখতে। ধাপে ধাপে লকডাউনও ঘোষণা করা হচ্ছে। একই সঙ্গে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়ানোর জন্যে। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সুষম আহার এবং নিয়মিত এক্সারসাইজ করতে বলা হচ্ছে।

কিন্তু ঠিক কতটা এক্সারসাইজ নিয়মিত করা উচিত। বিশেষজ্ঞদের মতে J-Shaped Curve মেনে চললেই সম্ভব শরীরকে সুস্থ রাখা। একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন করে টানা ৩ মাস এক্সারসাইজ প্যাটার্ন মেনে চললে, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত হয়।

আর দেরি না করে আজ থেকেই শুরু করে দিন। রইল কিছু পরামর্শ…

কী করবেন:
সপ্তাহে তিন দিন ২০ থেকে ৪৫ মিনিট ওয়র্ক আউট করুন। অত্যধিক কিছু করার প্রয়োজন নেই। কারও সঙ্গে না করে একাই ঘরে মিউজিক লাগিয়ে করুন। ওয়েট ট্রেনিংয়ে স্বচ্ছন্দ হলে হালকা ওয়েট ট্রেনিংও করতে পারেন। না হলে যোগাসন এবং ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ করুন। একা করতে বোর লাগলে, ভার্চুয়ালি কোনও বন্ধুর সঙ্গেও ওয়র্কআউট করতে পারেন। যা যন্ত্র ব্যবহার করবেন তা ডিসইনফেক্ট করতে ভুলবেন না যেন। তবে শুধু এক্সারসাইজ করলেই হবে না, পর্যাপ্ত ঘুম এবং সুষম আহারও অত্যন্ত জরুরি।

কী করবেন না:
অত্যধিক ক্লান্ত হয়ে পড়ার মতো এক্সারসাইজ করতে যাবেন না। রয়ে সয়ে করুন। যদি ফ্লু-এর লক্ষণ থাকে তাহলে একেবারেই এক্সারসাইজ করবেন না। হাইড্রেটেড থাকার জন্যে অত্যধিক পরিমাণে জল খাবেন না। দিনে তিন লিটার জল যথেষ্ট। সপ্তাহে পাঁচ দিনের বেশি এক্সারসাইজ করবেন না।

Total Page Visits: 199 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares