মতিরহাট নদীতে জেলেদের সঙ্গে নৌপুলিশের সংঘর্ষ, চার পুলিশ সহ আহত ৫

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি: আলমগীর হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:লক্ষ্মীপুরে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীতে চিংড়ী শিকারের সময় জেলেদের সঙ্গে নৌ-পুলিশের সংর্ঘষ হয়েছে। এতে চার পুলিশসহ পাঁচ জন আহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আটক হয়েছে ১ জেলে।

শনিবার দুপুরে ১২ টায় জেলার মতির হাট নদীর দুর্গম চর বুড়ির ঘাটের এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। আহতদের স্থানীয় স্বাস্থ্য ক্লিনিকে  ভর্তি করা হয়েছে।

মজু চৌধুরী ঘাট নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নি:/অচিন্ত কুমার দে,জানায়,মেঘনা নদী মতির হাট এলাকায় চিংড়ী জাতীয় মৎস্য আহরন নিষিদ্ধ করনে মাছ শিকার করছে জেলেরা। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সাত নৌ পুলিশ সেখানে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় জেলেরা চিংড়ীর পোনা আহরন করার সময় মশারী জাল দিয়ে তৈয়ারী ১৪ টি মই জাল এবং ১০ টি টেঁলা জাল আটক করে লঞ্চে উঠালে স্থানীয় জেলেদের পরিবারের নারী পুরুষেরা সংঘবদ্ধ হয়ে নৌ- পুলিশ টলারের  ওপর লগি বৈঠা,বাঁশ, দা, চেনী, নিয়ে হামলা করে। হামলার সময় নারী,পুরুষ শতাধিক জেলে তাদের ঘিরে ধরে।

অভিযানে অংশ নেওয়া নৌ-পুলিশ  ইনচাজ নি:/অচিন্ত কুমার দে জানায়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নৌ পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড শর্টগানের গুলি ও টিয়াল সেল ছুড়ে। এসময় অনেকেই দ্রুত গা ঢাকা দিলেও ১ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি।

এতে পুলিশের এসআই নি:/অচিন্ত কুমার দে,কনস্টেবল আবু তাহের,রুবেলসহ জেলে পরিবারের একনারী  গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এসময় ঘটনা স্থান থেকে কমল নগর উপজেলার বান্ডারী পাড়া গ্রামের মৃত হাসান আলী মাঝির ছেলে মনির হোসেন ১৯ কে আটক করা হয়েছে।

ঘটনা সম্পর্কে লক্ষ্মীপুর জেলা  মৎস্য কর্মকর্তা মো:বিল্লাল হোসেন জানায়, অভিযান চলা কালে জেলেরা পুলিশের উপরে হামলা করা ঠিক হয়নি।তবে অভিযান কালে পুলিশ আমাদেরকে অবগত করলে জেলেদের সাথে যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে তা হতো ঘটতোনা।

রবিবার রাত  সাড়ে ১০ টায় চাঁদপুর  নৌ -পুলিশের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মো:ইসমাইল মিয়া জানায়,নদীতে নিষেধাজ্ঞা  সময় জেলেদের অবৈধ জাল দিয়ে রেনু পৌনা চিংড়ী মাছসহ অন্যান্য মাছ নিধন করে চলছে খবর পেয়ে নৌ পুলিশ জেলেদের জাল জব্ধ করে নিয়ে আসার সময় শতাধিক  জেলে পরিবারের লোকজন নৌ-পুলিশ বহরে দেশী অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

এসময় আমাদের চার নৌ- পুলিশ আহত হয়,নিরাপত্তা রক্ষাথে পুলিশ ৫ রাউন্ড গুল ছুড়ে।এক জেলে কে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার স্থান থেকে বাশের লাঠি ,দা,লোহার রড উদ্ধার করা হয়।রবিবার বিকালে  ৮০ থেকে শতাধিক জেলেকে আসামী করে অজ্ঞাতানামা মামলা করা হয়।যাহার মামলা নং৩৩।

/ আহো

Total Page Visits: 265 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares