বিজয়ের মাধ্যমে পরাধীনতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পায় জাতি

বিজয়ের মাধ্যমে পরাধীনতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পায় বাঙালি জাতি: মোফাজ্জেল হক।

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার আয়োজনে মহান বিজয় দিবস ও শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করা হয়েছে।
এ উপলক্ষ্যে ১৬ ডিসেম্বর বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় কুষ্টিয়া শহরস্থ খেঁয়া রেস্তোরা’র সভা কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মোফাজ্জেল হক।

সভাপতির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মোফাজ্জেল হক বলেন, ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস।
আমাদের জাতীয় জীবনে এক পরম গৌরবময় দিন। দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হয়।
এই বিজয় অর্জনে মধ্য দিয়ে বিশ্বের মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের। মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের আত্মদান আর
দুই লাখ মা-বোনের ত্যাগ-তিতিক্ষায় এই বিজয় অর্জিত হয়। কোটি বাঙালির আত্মনিবেদন ও গৌরবগাঁথা গণবীরত্বে পরাধীনতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পায় বাঙালি জাতি।

বেনাপোলে আন্তর্জাতিক মানের ‘নিত্যহাটে’র যাত্রা

বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা, বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে জাতি ১৯৭১ সালে উপনীত হয়।
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা দিলে তার ডাকে সাড়া দিয়ে সশস্ত্র সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঙালি জাতি।
সভাপতির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মোফাজ্জেল হক আরো বলেন,
১৯৭১ সালে ২৫ মার্চের পর থেকে ৯ মাসে বাংলার দামাল ছেলেরা মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশকে স্বাধীনতার দুয়ারে নিয়ে উপনীত হয়।
মুক্তিবাহিনীর সঙ্গে ভারতীয় বাহিনীর সার্বিক সহযোগিতায় আমাদের মুক্তি সংগ্রাম সফলতা লাভ করে। ৩০ লক্ষ শহীদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে
১৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে আমরা আমাদের বিজয় পতাকা ছিনিয়ে নিতে সক্ষম হই। তাই ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস।

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ শীলা বসু (এজিপি) এর পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন,
বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক অজয় সুরেখা, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুনীল কুমার চক্রবর্তী, সহ-সভাপতি সৈয়দা হাবীবা,
সহ-সভাপতি গোপা সরকার, সহ-সভাপতি শরিফুল আলম সিদ্দিক কচি, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আজিজুল হক,
সরকারি শেখ ফজিলাতুন নিসা ডিগ্রী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আব্দুলাহ আল আজম,
বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ জেলা শাখার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাসান জামিল বাবু,
সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, অন্যতম নেতা বিশ^নাথ দাস বিশু, বীর মুক্তিযোদ্ধা এজাজ আহমেদ, সুলতানা করিম, রোকনুজ্জামান,
সদর উপজেলা শাখার কাজী মনির আহমেদ, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কুষ্টিয়া পৌর শাখার সভাপতি কবি শ্যামলী ইসলাম,
পৌর শাখার সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক সুজন কুমার কর্মকার প্রমুখ।

শাহজাদপুরের বনগ্রামে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

বিজয়ের মাধ্যমে পরাধীনতার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে পাঠ করেন আশিকুর রহমান।
পবিত্র শ্রী শ্রী মদ্ভগবত গীতা থেকে পাঠ করেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কুষ্টিয়া পৌর শাখার সাধন গোস্বামী।
এ সময় শিক্ষক সনৎ পাল বাবলু, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ সদর উপজেলা শাখার সভাপতি হারুন অর রশিদ, জেলা শাখার সদস্য টপি বিশ্বাস, প্রীতম মজুমদার,
বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ পৌর শাখার শামসুন নাহার, কৃষ্ণ কমল বিশ্বাস, মোঃ মামুনুর রহমান মামুন, ডাঃ চিন্ময় চক্রবর্ত্তী, শামীম রেজা, মোঃ শামীম শেখ,
প্রতাপ কুমার শর্মা, মোঃ আশরাফুল ইসলাম, বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, দিলশাদ বেগম, শাহনুর আলম চঞ্চল, রক্তিম ঘোষ, সুপ্লব কুমার ঘোষ সহ জেলা,
উপজেলা ও পৌর শাখার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সকালে কুষ্টিয়া কালেক্টরেট চত্বরে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

/ সুজন কুমার কর্মকার
সাধারণ সম্পাদক
বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ কুষ্টিয়া পৌর শাখা

www.thebanglawall.com
দ্যা বাংলা ওয়াল, The Bangla Wall, www.thebanglawall.com
দ্যা বাংলা ওয়াল, The Bangla Wall, www.thebanglawall.com
www.thebanglawall.com
www.thebanglawall.com
Total Page Visits: 119 - Today Page Visits: 1

২ thoughts on “বিজয়ের মাধ্যমে পরাধীনতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পায় জাতি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares