শার্শা উপজেলা হাসপাতালে ইয়োলো ও রেড জোনে টিকা

শার্শা উপজেলা হাসপাতালে ইয়োলো ও রেড জোনের সামনে চলছে টিকা কার্যক্রম।

যশোরের শার্শা উপজেলা হাসপাতালে নানা অবস্থাপনার মধ্য দিয়ে সোমবার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে শুরু হয়েছে চীনের সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ কার্যক্রম।

হাসপাতালের তৃতীয় তলায় ইয়োলো ও রেড জোন ওয়ার্ডের সামনের ফ্লোরে চলছে টিকা কার্যক্রম।

এই ফ্লোর দিয়ে যাতায়াত করছে হাসপাতালে চিকিৎসারত করোনা রোগীর অভিভাবক ও চিকিৎকরা। ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে ফ্লোরটি।

করোনা পরীক্ষা ও প্যাথলজি বিভাগে আসা ও টিকা নিতে আসা রোগীরা গা ঘেঁষাঘেঁষি করে দাঁড়িয়ে ও বসে থাকছে।

এখানে কোনো স্বাস্থ্যবিধি নেই। নারী-পুরুষের জন্য পর্যন্ত আলাদা কোন লাইন নেই।

রোগী ও ন্থানীয়দের অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অব্যবস্থাপনার কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

টিকা গ্রহনকারীদের অভিযোগ, যে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে তাতে করোনা প্রতিরোধক টিকা দিতে এসে না আবার করোনা নিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে হয়।

এছাড়া অদক্ষ নার্স দিয়ে টিকা দেয়ায় কারণে টিকা গ্রহনকারীর টিকার দেয়ায় স্থানে ক্ষতের সৃষ্টি হয়ে রক্তাক্ত হওয়ায় অভিযোগ রয়েছে।

শার্শা উপজেলা হাসপাতালে তবে হাসপাতাল কতৃপক্ষ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

উপজেলার সম্বন্ধকাঠি গ্রামের ইদ্রিস আলী জানান টিকা দেয়ার পর রক্তে তার পাজ্ঞাবীর অনেকটা ভিজে গেছে।

পাবনায় আরও সাতজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২২

বিষয়টি টিকা প্রদানকারীকে জানালে চিকিৎসা দিয়ে রক্ত বন্ধ করে।

উত্তর বুরুজ গ্রামের মিজানুর রহমান জানান, টিকা দিতে হাসপাতালে আসার পর জরুরী বিভাগ থেকে তিন তলায় যেতে বলা হয়।

তিন তলায় টিকা কার্ড জমা নেয়ার পর অপেক্ষা করতে বলে টিকা প্রদানকারীরা।

অপেক্ষা করার সময় দেখি আমার সামনে করোনা জোনের ইয়োলো ওয়ার্ড ও দক্ষিন পাশে রেড জোন ওয়ার্ড।

শুনলাম হাসপাতালে করোনা রোগীও আছে। ভয়ে ভয়ে টিকা দিয়ে বাসায় ফিরলাম। জানি না কি হবে।

নারায়ণপুর গ্রামের লক্ষন কুমার জানান সকালে এসেছি। ২ ঘন্টায়ও টিকা পাইনি। অথচ অনেকে আসছে টিকা নিয়ে চলে যাচ্ছে।

আমাদেরকে বসিয়ে রাখছে। কখন টিকা পাবো জানি না। ইয়োলো ও রেড জোন ওয়ার্ডেও সামনে বসে আছি ভয়ও রাগছে।

নড়াইলে মাদ্রাসা সুপারকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

টিকা নিতে আসা শার্শার আমেনা খাতুন জানান. করোনার টিকা নিতে এসে দেখি মানুষের ভিড়। এর মধ্যে কি ভাবে টিকা নিবো সেটাই ভেবে পাচ্ছি না।

বেনাপোলের সেলিম রেজা বলেন, করোনার টিকা নিতে এসে হাসপাতালের অবস্থা দেখে ভয় লাগছে।

মনে হচ্ছে করোনা না হলেও করোনা পজিটিভ রিপোর্ট নিয়ে বাড়ি ফিরতে হবে। করোনা টেস্ট, প্যাথলজি, টিকা দেওয়ার স্থান সবই পাশাপাশি।

একই ফ্লোর দিয়ে সবাইকে চলাচল করতে হচ্ছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সব কিছু এভাবে কেন করছেন সেটা বুঝতে পারলাম না।

শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার ইউসুফ আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, হঠাৎ করে রোগীর চাপ বাড়ায় ভিড় হচ্ছে।

হাসপাতালে জায়গার অভাবে তৃতীয় তলায় ইয়োলো ও রেড জোন ওয়ার্ডের সামনের ফ্লোরে টিকা কার্যক্রম চলছে।

বিকল্প জায়গা খুঁজে কাজ করার চেষ্টা চলছে। তবে আগামীকাল থেকে দ্বিতীয় তলায় টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করা হবে।

/ মোঃ জামাল হোসেন

http://shopno-tv.com, http://thebanglawall.com
প্রতিনিধির তালিকা দেখতে ভিজিট করুন shopnotelevision.wix.com/reporters সাইটে।
http://shopno-tv.com/
http://shopno-tv.com/
http://shopno-tv.com/
Total Page Visits: 59 - Today Page Visits: 1

বেনাপোল (যশোর) করেসপনডেন্ট

Md. Jamal Hossain Mobile: 01713-025356 Email: jamalbpl@gmail.com Blood Group: Alternative Mobile No: Benapole ETV Correspondent

২ thoughts on “শার্শা উপজেলা হাসপাতালে ইয়োলো ও রেড জোনে টিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares